Bitcoin – নয়া রেকর্ড! 1 ট্রিলিয়ন ডলার ছাড়ালো বিটকয়েনে বিনিয়োগের পরিমাণ

Bitcoin – বিটকয়েনে বিনিয়োগ করতে অনেকেই ভালোবাসেন। তবে আপনি কি জানেন এবারে বিটকয়েনে বৃদ্ধি (Bitcoin Rise) পাচ্ছে বিনিয়োগের অংক। জানা যাচ্ছে দীর্ঘদিন বাদে আবার বিটকয়েনের বিনিয়োগের পরিমাণ পৌঁছাতে পারে বিরাট উচ্চতায়। বিশেষ সূত্রের খবর অনুযায়ী গত বুধবারে বিটকয়েন (Bitcoin) এ মোট অর্থের পরিমাণ ২০২১ সালে নভেম্বরের পর প্রথমবারের মতো এক ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে গিয়েছে।


Bitcoin

1 ট্রিলিয়ন ডলার ছাড়ালো Bitcoin-এ বিনিয়োগের পরিমাণ

বিশেষজ্ঞদের মতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিটকয়েন এক্সচেঞ্জ ক্রেডির ফান্ড গুলি বিনিয়োগ আর্থিক সমর্থন অফ ব্যাহত রাখার কারণে সাম্প্রতিক বৃদ্ধি লক্ষণীয় হয়েছে। যে কারণে বিটকয়েনের প্রতি ট্রেডারদের আকর্ষণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়াও একটি খবর অনুযায়ী বুধবার বিটকয়েনের দাম 51606 মার্কিন ডলারে পৌঁছে গিয়েছে এই ক্ষেত্রে বুধবার ৪.১% বৃদ্ধি লক্ষণীয় হয়েছে পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এটি বিগত ২৫ মাসের মধ্যে সর্বাধিক উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছে। এই বৃদ্ধির জন্য ১.০০5 ব্রিলিয়ান্ট মার্কিন ডলারে পৌঁছে গিয়েছে মার্কেট।

আরও পড়ুন : Aadhaar Deactivate – একটি ভুলেই নিষ্ক্রিয় হতে পারে আপনার আধার কার্ড! কখনোই করবেন না এই কাজ

২০২১ সালে নভেম্বর মাসে বিটকয়েন মার্কেট ক্যাপ সর্বকালের সর্বাধিক বৃদ্ধির রেকর্ড করেছিল।পরবর্তীতে এই ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ক্রমাগতভাবে ওঠানামা লক্ষ্যণীয় হয়েছে। পুনরায় চলতি মাসে এটি 1 ট্রিলিয়নের মাইলফলক স্পর্শ করেছে। বিটকয়েন বর্তমানে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিপ্টোকারেন্সি হয়ে উঠেছে। ফেব্রুয়ারি মাস শুরু হওয়ার পর থেকে এই ক্রিপ্টোকারেন্সিটি 20 শতাংশের কাছাকাছি বৃদ্ধি লাভ করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে ইতিমধ্যেই এটি অক্টোবর মাসের পর থেকে সর্বাধিক মাসিক বৃদ্ধি লাভ করার দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

আরও পড়ুন : PM Mudra Yojana- ব্যবসার জন্য নেই পুঁজি? চিন্তার দিন শেষ! কেন্দ্রীয় সরকার দেবে 10 লক্ষ টাকার লোন, জানুন কিভাবে পাবেন

তবে এই সমস্ত কিছুর আগে জেনে রাখা দরকার এই বিটকয়েন জিনিসটি আসলে কি? বিটকয়েন হল প্রথম ডিসেন্ট্রালাইজড ক্রিপ্টোকারেন্সি। এটি একটি বিশেষ ধরণের ডিজিটাল কারেন্সি যা আর্থিক লেনদেন করার জন্য ব্লকচেন টেকনোলজির ব্যবহার করে থাকে। এই ডিজিটাল কারেন্সিটিতে আর্থিক লেনদেন করার জন্য কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠান যেমন ব্যাঙ্কের প্রয়োজন পড়ে না। এটি প্রাইভেট ডিজিটাল কারেন্সি হিসাবে বর্তমানে বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। তবে বিনিয়োগকারীদের মনে রাখা প্রয়োজন, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মুদ্রার বিপরীতে এটির দর ওঠানামা করে।

Leave a Comment